বুবলীকে নিয়ে একি বলল শাকিব খান!

ঢালিউডে ‘বুবলী’ নামটি শোনা যাচ্ছিল খুব। শাকিব খানের সঙ্গে ছবি করে এক লাফে তারকা হয়ে গেলেন এই নবাগতা। কিন্তু অপু বিশ্বাসের প্রত্যাবর্তনের পর হঠাৎ যেন মলিন হয়ে গেছে তাঁর উপস্থিতি। সংশয় প্রকাশ করেছেন অনেকে। বলছেন, অপু এসেছেন, বুবলী থাকবেন তো? বুবলীর আসলে হবে কী? সেটা জানালেন শাকিব নিজেই।

গত বছর শাকিব খানের সঙ্গে জুটি বেঁধে ‘বসগিরি’ ও ‘শুটার’ ছবি দুটিতে অভিনয় করেন বুবলী। দুটি ছবিই এক সঙ্গে ঈদুল আজহায় মুক্তি পায়। মুক্তির পরই বাজিমাত। এই দুজনের হিসাব মিলিয়ে নিল ঢালিউড। করতে শুরু করল সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা। কিছুদিনের মাথায় ‘অহংকার’ ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হলেন এই জুটি। সে সময় প্রায় ১০ মাস লাপাত্তা থাকার পর হঠাৎ হাজির অপু বিশ্বাস। বদলে যেতে শুরু করে আলোচনার পট। কেননা, রেকর্ডসংখ্যক সফল ছবির জুটি শাকিব-অপু থাকতে অন্য কিছু ভাববে কী করে ঢালিউড?
তাহলে কি আঁতুড়ঘরেই শেষ হয়ে যাবে শাকিব-বুবলী জুটির কাজ? চলচ্চিত্রপাড়ায় গুঞ্জন, অপু যখন ফিরেছেন, ‘অহংকার’-ই হবে এই জুটির শেষ ছবি। অপুর অনুপস্থিতে বুবলীকে নিয়ে শাকিবের যে আগ্রহ তাঁরা দেখেছেন, অপু ফেরার পর বুবলীকে নিয়ে সেই আগ্রহে যেন খানিকটা ভাটা পড়েছে শাকিবের। আসছে ঈদে শাকিব-বুবলীর কোনো ছবি নেই।
বুবলীর কাছে জানতে চাওয়া হয় এ নিয়ে। তিনি দেন কৌঁসুলি জবাবা। বলেন, ‘ভারতের ভেঙ্কটেশের ছবি নিয়ে শাকিব এখন ব্যস্ত। তাই এই ঈদে নতুন কোনো ছবিতে কাজের সুযোগ নেই তাঁর।’ বোঝা যায়, শাকিবের প্রতি আস্থা আছে তাঁর। তিনি বলেন, ‘আগামী ঈদুল আজহায় অবশ্যই আমাদের দুজনের একটি ছবি থাকবে। এ ব্যাপারে শাকিবের সঙ্গে কথাও হয়েছে আমার।’
কী ছবি সেটি? জানতে চাইলে বুবলী বলেন, ‘শাকিব খান যেভাবে বলেছেন, শুরু থেকে সেভাবেই কাজ করে যাচ্ছি। ঈদুল আজহার ছবির বিষয়টি তিনিই জানেন।’ এ বিষয়ে শাকিব খানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছিল। অপু ফেরার কারণে বুবলীকে ঘিরে যে গুঞ্জন উঠেছে, তা উড়িয়ে দিয়েছেন তিনি। জোর দিয়ে বললেন, ‘অবশ্যই আগামী ঈদুল আজহার একটি ছবিতে আমি ও বুবলী একসঙ্গে কাজ করব। সেটি হতে পারে ‘বসগিরি’ ছবির দ্বিতীয় কিস্তি ‘বসগিরি টু’ বা অন্য যেকোনো ছবি। এটা চূড়ান্ত।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here